এশিয়া কাপ ২০২৩: বাংলাদেশ দলের সম্ভাব্য শক্তিশালী একাদশ

এশিয়া কাপ ২০২৩: বাংলাদেশ দলের সম্ভাব্য সবচেয়ে শক্তিশালী একাদশ এবং বাংলাদেশ দলের সম্প্রতি ঘোষিত স্কোয়াড নিয়ে বিস্তারিত থাকছে আজকের পর্বে।

সম্প্রতি সময়ে এশিয়া কাপ ক্রিকেট টুর্নামেন্টকে ঘিরে দলগুলোর প্রস্তুতি শুরু হয়েছে। ইতিমধ্যেই দলগুলো তাদের নিজস্ব দলের স্কোয়াড প্রকাশ করেছে। প্রত্যেক দলের ন্যায় বাংলাদেশ দলও ইতিমধ্যে তাদের ১৭ জনের স্কোয়াড প্রকাশ করেছে। তবে বাংলাদেশের প্রকাশিত স্কোয়াড নিয়ে বরাবরের মত রয়েছে বিতর্ক।

তবে এশিয়া কাপ ২০২৩ স্কোয়াড নিয়ে বিতর্ক থাকার কারণ হিসেবে আছে মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের সতেরো জনের স্কোয়াডে না থাকা এবং নাঈম শেখ, শামীম পাটোয়ারীর মত খেলোয়াড়দের দলে অন্তর্ভুক্তি। বিশেষ করে ক্রিকেট ভক্তদের প্রত্যাশা ছিল সতেরো জনের স্কোয়াডে মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ নামটা থাকবে। জাতীয় দলের জার্সি গায়ে আরো একবার দেখা যাবে এই তারকাকে। কিন্তু এমনটা হয়নি বলেই রয়েছে যত বিতর্ক।

আজকের পর্বে স্কোয়াড অনুযায়ী বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের সম্ভাব্য শক্তিশালী একাদশ থাকছে। সবকিছু ঠিক থাকলে এই স্কোয়াড নিয়ে বাংলাদেশকে এশিয়া কাপে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে নিজেদের প্রথম ম্যাচে মাঠে নামতে দেখা যাবে ৩১ আগস্ট তারিখে।

টিম বাংলাদেশ: রোড টু দ্য এশিয়া কাপ ২০২৩

Asia Cup 2023 টুর্নামেন্ট মৌসুম হতে যাচ্ছে এশিয়া কাপের ১৬তম মৌসুম। ইতিমধ্যে এশিয়া কাপে দলগুলোর স্কোয়াড এবং ম্যাচের টিকেট বিক্রর প্রক্রিয়া শুরু হয়ে শেষ হতে চললো। কয়েকদিনের ব্যবধানে শুরু হবে এবারের এশিয়া কাপ।

এশিয়া কাপের বিগত ১৫ মৌসুমেও বাংলাদেশ দল একবারের মত শিরোপা ঘরে তুলতে পারেনি। যেটি বাংলাদেশ দলের এশিয়া কাপে সবচেয়ে বড় ব্যর্থতার পরিচয় বহন করে থাকে। তবে অন্যান্যবারের তুলনায় এবার এশিয়া কাপে বাংলাদশের প্লেয়িং একাদশ হতে যাচ্ছে সবচেয়ে শক্তিশালী।

ব্যাটসম্যান এবং বোলারদের সেরা ফর্ম বাংলাদেশের এশিয়া কাপের আক্ষেপ মেটাতে পারে এবার।

ইতিমধ্যেই প্রকাশিত হয়েছে স্কোয়াড, আর তাই স্কোয়াডকে ঘিরেই জয়ের পরিকল্পনা বাংলাদেশ দলের। সাকিবকে অধিনায়ক করে জয়ের উদ্দেশ্য নিয়ে মাঠে নামবে বাংলাদেশ। শিরোপা জয় ছাড়া সাকিবদের ভাবনা যেন আর কিছুই নয়।

Asia Cup 2023: বাংলাদেশের সম্ভাব্য একাদশ

সাকিব আল হাসান (অধিনায়ক), লিটন কুমার দাস, নাজমুল হোসেন শান্ত, তৌহিদ হৃদয়, মুশফিকুর রহিম, আফিফ হোসেন ধ্রুব, তাসকিন আহমেদ, হাসান মাহমুদ, মুস্তাফিজুর রহমান, মেহেদী হাসান মিরাজ, নাইম শেখ।

এশিয়া কাপ ২০২৩: টপ-অর্ডার ব্যাটসম্যান

লিটন কুমার দাস
নাঈম শেখ
নাজমুল হোসেন শান্ত
তৌহিদ হৃদয়

এশিয়া কাপ ২০২৩: মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান

সাকিব আল হাসান
মুশফিকুর রহিম
আফিফ হোসেন ধ্রুব

বাংলাদেশ স্কোয়াডের অল-রাউন্ডার

সাকিব আল হাসান
মেহেদী হাসান মিরাজ
আফিফ হোসেন ধ্রুব

বাংলাদেশ স্কোয়াডের বোলার

তাসকিন আহমেদ
হাসান মাহমুদ
মুস্তাফিজুর রহমান

এটি ছিল বিভিন্ন বিভাগ এবং ইউনিট অনুযায়ী বাংলাদেশ দলের এশিয়া কাপের স্কোয়াড বিশ্লেষণ। ব্যাটসম্যান হিসেবে এবার দলে লিটন দাস, নাঈম শেখ, নাজমুল হোসেন শান্ত, তৌহিদ হৃদয় এবং মুশফিকুর রহিমকে দেখা যাবে।

অলরাউন্ডার হিসেবে আছেন আফিফ হোসেন ধ্রুব, সাকিব আল হাসান এবং মেহেদী হাসান মিরাজ।

অন্যদিকে বোলিং ইউনিটে আছে তাসকিন আহমেদ, হাসান মাহমুদ ও মুস্তাফিজুর রহমান।

টিম বাংলাদেশের সম্ভাব্য চ্যালেঞ্জ

এশিয়া কাপ ২০২৩ নিঃসন্দেহে বাংলাদেশের জন্য ভালো কিছু বয়ে আনতে পারেন।

কেননা এবার বাংলাদেশ দলের স্কোয়াড এমন স্বপ্ন দেখাচ্ছে পুরো দেশের মানুষকে। তবে স্কোয়াডে এত শক্তিশালী একাদশ থাকার সত্বেও বাংলাদেশ দলের জন্য কিছু বিষয় এশিয়া কাপের মঞ্চে চ্যালেঞ্জ হিসেবে দেখা দিতে পারে।

নিচে এমন কিছু চ্যালেঞ্জ নিয়ে আলোচনা করা হলো।

১. ওপেনার হিসেবে তামিমের রিপ্লেসমেন্ট

সাবেক অধিনায়ক এবং দলের সেরা ওপেনার তামিম ইকবালের এশিয়া কাপ ক্রিকেট থেকে হটাৎ ছিটকে যাওয়া বাংলাদেশকে একটু হলেও চিন্তায় ফেলবে।

কেননা ওডিআই ক্রিকেটে যে সর্বোচ্চ রানের মালিক এই তামিম ইকবাল।

তামিমের রিপ্লেসমেন্ট হিসেবে নাঈম শেখ স্কোয়াডে জায়গা পেলেও ফর্মে নেই নাঈম। এটি দলের জন্য একটি চ্যালেঞ্জ হতে পারে।

২. ৭নং অবস্থানের উপযুক্ত খেলোয়াড়

বাংলাদেশে সপ্তম অবস্থানে খেলার সবচেয়ে উপযুক্ত খেলোয়াড় ছিলেন মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ। তবে এশিয়া কাপের স্কোয়াডে জায়গা পাননি রিয়াদ।

আফিফ হোসেনকে এই অবস্থানে খেলানোর পরিকল্পনা থাকলেও নিজের কাঙ্খিত ফর্মে নেই আফিফ। তাই এই অবস্থান নিয়ে আছে দুশ্চিন্তা।

৩. মিডল অর্ডার দুর্বলতা

বরাবরের মতই বাংলাদেশের ব্যাটিং লাইনআপে রয়েছে মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান নিয়ে দুশ্চিন্তা। সাকিব, মুশফিক, আফিফ, মিরাজের মত মিডল অর্ডার প্লেয়ার থাকলেও বড় জুটি তৈরির ক্ষেত্রে বাংলাদেশ অনেকটাই পথ চেয়ে থাকে টপ অর্ডারের দিকে।

যেটি দলের বড় রান তারা করার ক্ষেত্রে একটি বড় চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দেয়।

৪. মুস্তাফিজ দুশ্চিন্তা

এটা বলা বাহুল্য যে পুরোনো দিনের কাটার মাস্টার এবং বর্তমানের কাটার মাস্টার মুস্তাফিজুর রহমানের মধ্যে পার্থক্যটা খুজে পাবেন আপনিও। সময়ের সাথে সাথেই পুরনো ছন্দ পতন হয়েছে ফিজের। দলের হয়ে আহামরি ভালো ছন্দে দেখা যাচ্ছে না তাকে। যেটি দলের একটি দুশ্চিন্তার কারণ।

৫. খেলোয়াড়দের পারফরম্যান্সের ধারাবাহিকতা

বাংলাদেশ দলের বেশিরভাগ ম্যাচ হারের একমাত্র কারণ ছিল খেলোয়াড়দের পারফরমেন্সের ধারাবাহিকতা বজায় না রাখা।

প্রত্যেকে একই সময়ে দলের হয়ে পারফরমেন্স করতে ব্যর্থ হয়। যেটি দলের জন্য সম্ভাব্য বড় চ্যালেঞ্জ হতে পারে এশিয়া কাপে।

উপরের ৫টি বড় চ্যালেঞ্জ যদি বাংলাদেশ দল এশিয়া কাপে এড়িয়ে যেতে পারে তবে দলের জন্য ভালো কিছুই অপেক্ষা করছে এবার এশিয়া কাপে।

অধিনায়কত্ব এবং নেতৃত্ব

সাবেক অধিনায়ক তামিম ইকবালের হটাৎ অধিনায়কত্ব প্রত্যাহারের পর সকল বিতর্ক শেষে সাকিব আল হাসানকে বিশ্বকাপ এবং আসন্ন এশিয়া কাপে অধিনায়কত্বের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

দলের সবচেয়ে অভিজ্ঞ এবং বুদ্ধিমান খেলোয়াড় হিসেবে বিবেচিত এই বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার দলের হয়ে নেতৃত্ব দেবে।

গুণাবলীর দিক থেকে সাকিবের নেতৃত্বের তুলনা হয়না। তার নেতৃত্বে অনেক ম্যাচেই সুপ্রসন্ন ফলাফল পেয়েছে বাংলাদেশ দল।

তাছাড়াও, তামিমের অধিনায়কত্ব থেকে অব্যহতি দেওয়ার পর সবার একটাই নাম মাথায় ছিল যেটা হচ্ছে সাকিব আল হাসান।

যিনি দলের হয়ে সর্বদা নিজের সেটা পারফরম্যান্স দিতে ব্যস্ত থাকেন।

আর তাই শক্তিশালী স্কোয়াডের সাথে সাথেই বাংলাদেশ দল এবার পেতে যাচ্ছে একটি যোগ্য নেতা।

আর সে যোগ্য নেতাই আমাদের দেশ ও বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। সাকিবের হাত ধরেই এবার এশিয়া কাপ এবং বিশ্বকাপে ট্রফি জেতার বড় স্বপ্ন বাংলাদেশের।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Top Rated Casinos
1.2% Daily Slot Rebate
VIP Point Exchange
500 Free Cash + 5 Free Spins
Sign up and get ৳500 free Credit
2.5% USDT Deposit Bonus